রবিবার , ১৬ এপ্রিল ২০২৩, ৮ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, সকাল ৮:০২

করোনায় মারা যাওয়া ব্যক্তি দু’বছর পর বাড়ি ফিরলেন!

ডেস্ক রিপোর্ট
এপ্রিল ১৬, ২০২৩ ১:১৮ অপরাহ্ণ
Link Copied!

দু বছর আগে করোনায় (কেভিড-১৯) মৃত্যু হয়েছিল কমলেশ পতিদারের। ভারতে করোনা আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন ওই ব্যক্তি। কিন্তু হাসপাতালেই তার মৃত্যু হয়েছে বলে জানিয়ে দেন চিকিৎসক। সেই মতো কাপড়ে মোড়া মৃতদেহ পরিবারের হাতে তুলে দেওয়া হয় হাসপাতালের তরফ থেকে।

৩৫ বছর বয়সী কমলেশের শেষকৃত্য সম্পন্ন করেন তার পরিবার। কিন্তু দু বছর আগে মৃত্যু হওয়া কমলেশ হঠাৎই শনিবার সকালে বাড়ি ফেরেন। মৃত ব্যক্তিকে জীবিত দেখে বিষ্মিত হন পরিবারের সদস্যরা। নিজের চোখকে বিশ্বাস করতে পারছেন না কেউই। ভারতীয় গণমাধ্যম এনডিটিভি এ তথ্য জানিয়েছে।

গতকাল (১৬ এপ্রিল) শনিবার এই ঘটনা ঘটে মধ্যপ্রদেশের ধর জেলায়। দু বছর আগে মৃত্যু হওয়া এক ব্যক্তি যার শেষকৃত্য সম্পন্ন করেছে পরিবার সেই ব্যক্তি কীভাবে বেঁচে ফিরে আসতে পারেন! এই নিয়ে চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়েছে গোটা এলাকায়।

এদিন ভোর ৬ টার দিকে করদকলা গ্রামে খালার বাড়িতে দরজা ধাক্কা দেন কমলেশ। মৃত বোনপুত্রকে জীবিত অবস্থায় দেখে নিজের চোখকেই বিশ্বাস করতে পারছিলেন না খালার বাড়ির কেউই।

পুলিশকে কমলেশের এক খালাতো ভাই জানান, ২০২১ সালে করোনা আক্রান্ত হওয়ায় গুজরাট ভাদোদরার এক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল কমলেশকে। কিন্তু হাসপাতালেই মৃত্যু হয় তার। ভাদোদরার হাসপাতাল থেকে কমলেশের মৃতদেহ নিয়ে তার গ্রামে ফিরে শেষকৃত্য সম্পন্ন করা হয়। সেই মৃত ব্যক্তি কিভাবে জীবিত থাকতে পারেন, তা নিয়ে উঠছে প্রশ্ন। তবে কি কোভিড মৃতদেহদের কাপড়ে মোড়ানো হয় বলে অন্য কারো মৃতদেহের সঙ্গে অদল বদল হয়েছিল কমলেশের!

তাহলে দুবছর ধরে কোথায় ছিলেন কমলেশ? কেনইবা এতোদিন তিনি ফেরেননি বাড়িতে? এ নিয়ে উঠছে প্রশ্ন।

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।