বৃহস্পতিবার , ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ৮ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, রাত ১:০৪

কবি সেগুফতা আনসারীর ‘স্বপ্নছায়া’ কাব্যগ্রন্থ নিয়ে সাক্ষাৎকার

লবীব আহমদ
ফেব্রুয়ারি ২৩, ২০২৩ ১২:১৯ অপরাহ্ণ
Link Copied!

সিলেটের সকাল রিপোর্ট : সিলেটের ঐতিহ্যবাহী বিদ্যাপীঠ মুরারিচাঁদ (এমসি) কলেজ কতৃর্ক আয়োজিত ৩দিন ব্যাপি বইমেলায় উপস্থিত, সুনামগঞ্জ জেলার তাহিপুর উপজেলার হাওর বেষ্টিত মানিকখিলা গ্রামে জন্ম গ্রহণ করা বর্তমান সময়ের উদীয়মান কবি, মুরারিচাঁদ কলেজের গণিত বিভাগের ২০০৪-০৫ইং সেশনের প্রাক্তন শিক্ষার্থী, বর্তমানে সিলেট সদর উপজেলার মেদিনী মহল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক কবি সেগুফতা আনসারীর অমর একুশে বইমেলা-২০২৩ এ একক কাব্য গ্রন্থ “স্বপ্নছায়া” প্রকাশিত হয়েছে। এনিয়ে কবির সাথে আলাপ হয় সিলেটের সকালের। কবি বইটি সম্পর্কে সিলেটের সকালকে যা বলেন —

 সিলেটের সকাল : অমর একুশে বই মেলায় আপনার সাড়া জাগানো কাব্য গ্রন্থ “স্বপ্নছায়া” সম্পর্কে কিছু বলুন?

কবি সেগুফতা আনসারী: এটি আমার প্রথম কাব্য গ্রন্থ। বইটিতে স্বরবৃত্ত, মাত্রাবৃত্ত এবং মুক্ত ছন্দের নানন্দিক উপস্থাপনে রচিত আমার ৫৬ কবিতা প্রকাশিত হয়েছে। বইটির প্রচ্ছদ করেছেন চারুশিল্পী হাসনাত সাইফুল। বইটি প্রকাশ করেছে দেশবাংলা প্রকাশন। চার ফর্মার এই বইটির প্রচ্ছদ মূল্য রাখা হয়েছে ২০০ টাকা মাত্র। বইটি ২৫% ছাড়ে পাওয়া যাচ্ছে অমর একুশে বইমেলা ২০২৩ইং এর চারুসাহিত্যাঙ্গনের ৫৪৮ নং স্টলে। পরবর্তীতে বইটি পাওয়া যাবে রকমারি ডটকম সহ, সিলেটের জিন্দাবাজারের, ৪-রাজা ম্যানশন, নুজহাত বুকস্টোরে এবং পার্সোনাল হোয়াটস অ্যাপ 01935059008 নাম্বারে যোগাযোগের মাধ্যমে।

 সিলেটের সকাল :আপনার কাব্য গ্রন্থের বিষয় বস্তু কি?

কবি সেগুফতা আনসারী: “স্বপ্ন ছায়া” কাব্য গ্রন্থটিতে মূলত আমি স্রষ্টার নয়নাভিরাম সৃষ্টি প্রকৃতির সাথে মানব মনের প্রেম বিরহের সম্পর্ক স্থাপনের চেষ্টা করেছি।

সিলেটের সকাল : আপনার কাব্য গ্রন্থ প্রকাশের উদ্দেশ্য কি?

কবি সেগুফতা আনসারী : জীবনে ঘটে যাওয়া অনেক স্মৃতিকে ছন্দ কথার নান্দনিক উপস্থাপনের মধ্যেমে স্মৃতিময় করে রাখার উদ্দেশ্যে কিছু আবেগ ঘন ভাবনাকে একত্রে প্রকাশ করার নিমিত্তে এই কাব্য গ্রন্থটি মুদ্রণে সম্মত হয়েছি।

সিলেটের সকাল : আপনি কেন “স্বপ্নছায়া” নামকরণ করলেন?

কবি সেগুফতা আনসারী: আমার “স্বপ্নছায়া” কাব্য গ্রন্থটিতে প্রকাশিত ৫৬ টি কবিতার মধ্যে ৭টি কবিতাই নিজের অপ্রকাশিত স্বপ্ন নিয়ে লেখা তাছাড়া অন্যান্য কবিতা গুলোতে পাঠক কল্পনা ও বাস্তবতার গভীর সম্পর্ক স্থাপনে স্বপ্নলোকের সুখ আস্বাদন করতে পারবে তাই বইটির নামকরণ করেছি “স্বপ্ন ছায়া”।

সিলেটের সকাল : “স্বপ্নছায়া” কবিতাটিতে আপনি কোন বিষয়টিকে তুলে ধরতে চেয়েছেন?

কবি সেগুফতা আনসারী: আসলে এই কবিতাটি মূলত আমার স্রষ্টাকে উদ্দেশ্য করে লেখা। আমরা প্রতিটি মানুষই স্বপ্নবিলাসী, যখন আমাদের স্বপ্ন গুলো অপূর্ণ থেকে যায় আমারা হতাশার অতলে ডুবে যাই সেই অবস্থা থেকে উত্তরণের জন্য নতুন স্বপ্নের আলোকে স্বপ্নের ছায়া হয়ে যেন প্রভুর প্রদত্ত সুখ গুলো আমাদেকে সব সময় জড়িয়ে থাকে সেটাই আমার প্রত্যাশা

সিলেটের সকাল : এই কাব্য গ্রন্থে আপনার ভালোলাগার কবিতা কোনটি এবং কেন?

কবি সেগুফতা আনসারী: একজন কবির কাছে তার সৃষ্টি সব সময়ই প্রিয়, তারপরেও কিছু মূহুর্তের সাথে কবির অনরকম ভালো লাগা জড়িয়ে থাকে, সেই মূহুর্তটিকে লেখনীতে আবব্ধ করে রাখার মধ্যেই কবি খুঁজে পায় মানসিক প্রশান্তি আমার তেমনি একটি কবিতা হল “অনন্ত পথ চলা”। এই কবিতাটিতে ফুটে উঠেছে আমার গ্রামের ছবি। যেখানে হয়েছিল আমার কবিতা লেখার হাতকড়ি। আমার কল্পনা বিলাসী মনে আবছা হয়ে ধরা দিত এমনি এক নির্বাক চিত্র। যা আজও আমাকে আন্দোলিত করে যায়, আমি বার বার ফিরে যাই আমার কৈশোর ও তারুণ্যের মধুময় দিন গুলোতে।

সিলেটের সকাল : আপনি কি মনে করেন আপনার কাব্য গ্রন্থটিতে সমাজের অনুসরণীয় দৃষ্টান্ত প্রতিফলিত হয়েছে?

কবি সেগুফতা আনসারী: সমাজে ঘটে যাওয়া ঘটনা চিত্রকে লেখকের লেখনীতে শব্দ প্রবাহের মাধ্যমে তুলে ধরার মধ্য দিয়ে সৃষ্টি হয় সাহিত্য। আমি এমনি অনেক বাস্তবতাকে আমার কবিতায় তুলে ধরার চেষ্টা করেছি। যা সমাজে অনুকরণীয় আর্দশ হয়ে থাকবে বলে আমার বিশ্বাস। আমার “উত্তম ও অধম” কবিতাটি বাস্তবতার একটি অনন্য নির্দশন হয়ে থাকবে বলে আমি মনে করি।

সিলেটের সকাল : আপনার এই পর্যন্ত আসার পেছনে কাদের উৎসাহ উদ্দীপনা আপনাকে অনুপ্রাণিত করেছে?

কবি সেগুফতা আনসারী: আমি প্রথমেই বলব আমার ছায়াসঙ্গী আমার স্বামী ডাচ্-বাংলা ব্যাংকের কর্মকর্তা হুমায়ুন কবির যার উৎসাহ উদ্দীপনায় শুরু হয়েছিল আমার নিয়মিত সাহিত্য চর্চা সেই সাথে আমার পরিবারের সকল সদস্যবৃন্দ, দেশবাংলা প্রকাশন এর প্রকাশক কবি ও গীতিকার মুজিবুর রহমান, শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের রসায়ন বিভাগের অধ্যাপক কবি ড, নিজাম উদ্দিন স্বপন স্যার, বিশিষ্ট লেখক, কবি, গীতিকার প্রফেসর ড,মোস্তফা দুলাল স্যার, প্রাথমিক শিক্ষা পরিবারের সদস্য পিটিআই ইন্সট্রক্টর জনাব খসরুজ্জামান স্যার, সহকারী উপজেলা শিক্ষা অফিসার রিয়াজুল ইসলাম, মামুন হোসাইন স্যারসহ আমার প্রিয় পাঠক মহলের অনুপ্রেরণায় আমার ডায়েরীর পাতায় আবদ্ধ পংক্তিমালা কাব্য গ্রন্থ আকারে আত্মপ্রকাশ করল।

সিলেটের সকাল : পাঠকদের উদ্দেশ্যে আপনার কি কিছু বলার আছে?

কবি সেগুফতা আনসারী : কবির প্রাণের স্পন্দন হচ্ছে কবিতা, আর কবিতায় প্রাণ সঞ্চার হয় পাঠকের মুগ্ধতায়। আমার এই ক্ষুদ্র প্রয়াস “স্বপ্নছায়া “কাব্য গ্রন্থটি যদি পাঠক হৃদয়কে সামান্যতম আনন্দোলিত করতে পারে এখানে আমার স্বার্থকতা। যারা বইমেলা থেকে আমার বইটি সংগ্রহ করেছেন তাঁদেরকে জানাচ্ছি আন্তরিক ধন্যবাদ। বইটির সফলতার জন্য আমি সকল পাঠকের আন্তরিক সহযোগিতা কামনা করছি।

সিলেটের সকাল : আপনারা ব্যস্ততার মধ্যে আমাদেরকে সময়ে দেওয়ার জন্য অসংখ্য ধন্যবাদ।

কবি সেগুফতা আনসারী: আপনাকেও আন্তরিক ধন্যবাদ সেই সাথে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি সিলেটের সকালের সাথে সম্পৃক্ত সকল গুনীজনের প্রতি।

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।