বৃহস্পতিবার , ১৬ মার্চ ২০২৩, ৮ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, রাত ১২:৪৯

শাবিতে ফুটবল খেলা নিয়ে দু’পক্ষের হাতাহাতি, প্রক্টরকে হেনস্তা

ডেস্ক রিপোর্ট
মার্চ ১৬, ২০২৩ ৫:৩৬ অপরাহ্ণ
Link Copied!

শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে ফুটবল খেলাকে কেন্দ্র করে দুই বিভাগের শিক্ষার্থীদের মধ্যে হাতাহাতির ঘটনা ঘটেছে। এসময় বিশ্ববিদ্যালয়র প্রক্টর অধ্যাপক ড. কামরুজ্জামান চৌধুরী হেনস্তার শিকার হন। বৃহস্পতিবার (১৬ মার্চ) বিকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় খেলার মাঠে পরিসংখ্যান বিভাগ ও লোকপ্রশাসন বিভাগের শিক্ষার্থীদের মধ্যে এ ঘটনা ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, বৃহস্পতিবার বিকাল ৪টায় পরিসংখ্যান বিভাগ ও লোকপ্রশাসন বিভাগের দ্বিতীয় সেমিফাইনাল খেলা অনুষ্ঠিত হয়। খেলার নির্ধারিত সময়ে গোল না হওয়ায় ট্রাইবেকারে গড়ার ম্যাচটি। পরে পরিসংখ্যান বিভাগ ৩-০ গোলে জয় পায়। ট্রাইবেকারে সর্বশেষ স্যুট নেওয়ার পর লোকপ্রশাসন বিভাগের শিক্ষার্থী সুজাত আহমেদ গোল মিস করলে পরিসংখ্যান বিভাগের জয় নিশ্চিত হয়। এসময় জয় উদযাপন করতে গিয়ে সুজাতকে আঘাত করে পরিসংখ্যান বিভাগের কয়েক শিক্ষার্থী। পরে সুজাত প্রতিবাদ জানাতে গেলে দুই বিভাগের শিক্ষার্থীদের মধ্যে হাতাহাতি ও ধস্তাধস্তিতে জড়িয়ে পড়ে। পরে দু’পক্ষকে আলাদা করে দেন প্রক্টরিয়ার বডির সদস্য ও উপস্থিত শিক্ষকরা।

প্রত্যক্ষদর্শীরা আরো জানান, দুই পক্ষকে আলাদা করে দেয়ার পর পরিসংখ্যান বিভাগের শিক্ষার্থীরা কটুক্তি করলে করলে লোকপ্রশাসন বিভাগের শিক্ষার্থীরা তাদের ধাওয়া দেয়। এসময় দু’পক্ষের মধ্যে আবারো হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। দুইপক্ষকে থামাতে গিয়ে শিক্ষার্থীদের ধস্তাধস্তির মধ্যে হেনস্তার শিকার হন প্রক্টর। পরে পরিস্থিতি স্বাভাবিক করে দু’পক্ষের শিক্ষার্থীদের মাঠ ত্যাগ করানো হয়।

এ বিষয়ে প্রক্টর অধ্যাপক ড. কামরুজ্জামান চৌধুরী বলেন, আমরা ঘটনাটি সেখানে সমাধান করে দিতে চেয়েছিলাম। দুই বিভাগের শিক্ষার্থীরা উত্তেজিত থাকায় তাদেরকে আলাদা করে দেওয়া হয়। এরপর আবারও ঝামেলা সৃষ্টি হলে এক শিক্ষার্থী বাঁশ নিয়ে আসছিল, তার কাছ থেকে বাঁশ নেওয়ার সময় একটু ধাক্কা লাগে। পরে বিষয়টি মাঠেই সমাধান করে দেওয়া হয়েছে। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে ভবিষ্যৎ কোন ঘটনা না ঘটতে সকলকে সতর্ক করে দেওয়া হয়েছে।

এদিকে হাতাহাতির সময় আঘাতপ্রাপ্ত হয়ে লোকপ্রশাসন বিভাগের ২০১৯-২০ সেশনের শিক্ষার্থী সুজাত আহমেদ সিলেটের মাউন্ট এডোরা হাসপাতালে ইমার্জেন্সিতে ভর্তি হয়েছে বলে জানান লোকপ্রশাসন বিভাগের প্রধান অধ্যাপক ড. মো. আশরাফ সিদ্দিকী। তিনি বলেন, ঘটনার সময় আমাদের বিভাগের কয়েকজন শিক্ষার্থী আঘাত পায়। এর মধ্যে সুজাতের অবস্থা অবনতি হওয়ায় তাকে হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়।

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।