বুধবার , ১২ এপ্রিল ২০২৩, ৮ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, সকাল ৭:৩০

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন মেনে সাংবাদিকতা হবে না

ডেস্ক রিপোর্ট
এপ্রিল ১২, ২০২৩ ৫:৫২ অপরাহ্ণ
Link Copied!

#সিলেটে মতবিনিময় সভায় শ্যামল দত্ত

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন মেনে সাংবাদিকতা হবে না বলে মন্তব্য করেছেন জাতীয় প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক ও ভোরের কাগজের সম্পাদক শ্যামল দত্ত।

বুধবার (১২ এপ্রিল) সিলেট নগরীর একটি অভিজাত হোটেলে মাদকদ্রব্য ও নেশা নিরোধ সংস্থা মানস আয়োজিত
‘মাদকাসক্তি প্রতিরোধ জনপ্রতিনিধিদের ভ‚মিকা ও আগামী নির্বাচন শীর্ষক মতবিনিময় ও ইফতারপূর্ব আলোচনা সভায়
প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি।

এ সময় ভোরের কাগজের সম্পাদক বলেন, মাদকসেবীরা অত্যন্ত শক্তিশালী। তারা এখন সোশ্যাল মিডিয়ায় (সামাজিক
যোগাযোগ মাধ্যম) বিজ্ঞাপন দিয়ে মাদক বিক্রি করে। তারা জেলে গেলেও বিচার বিভাগ থেকে জামিন নিয়ে আসে। কারণ
মাদক নিয়ন্ত্রণ আইনের প্রয়োগ নেই। আইণশৃঙ্খলা বাহিনীও তাদের নিকট অসহায়। আইনের ফাঁকফোকরে তারা ছাড় পেয়ে আবারো মাদক বিক্রিতে জড়িয়ে পড়ে।

শ্যামল দত্ত বলেন, আমাদেও অনেক রাজনীতিবিদরা নিজেরাই মাদকে আসক্ত। তাদের দিয়ে মাদক নিয়ন্ত্রণ সম্ভব নয়। তাই শুধু ছাত্রলীগের নেতাদের জন্য ডোপ টেস্ট নয়, এমপি নির্বাচনের প্রার্থীদেরও ডোপ টেস্ট করার বিধান রাখতে হবে। আমাদের মহান

জাতীয় সংসদে মাদকাসক্ত ব্যক্তি থাকতে পারেনা। কারণ যারা আইন তৈরি করে তারা যদি আইন ভঙ্গ করেন তাহলে দেশ এগিয়ে যাবে কিভাবে।

তিনি আরো বলেন, একটি অসা¤প্রধায়িক ধর্ম নিরপেক্ষ বাংলাদেশ গড়তে হলে মাদকমুক্ত সমাজ তৈরি করতে হবে।
ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বন্ধের দাবি জানিয়ে তিনি বলেন, সাংবাদিকতা এ আইনের কারনে বাধাগ্রস্ত হচ্ছে। এটি
সাংবাদিক বিরোধী আইন। মতবিনিময় সভায় মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন মানস এর প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা
অধ্যাপক ড. অরুপ রতন চৌধুরী।

তিনি সিলেট-২ আসনে আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নিজেকে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী প্রার্থী ঘোষণা
করে বলেন, সারা দেশে মাদকের বিরুদ্ধে সংগ্রাম করেছি এবার নিজের এলাকার মানুষের জন্য কাজ করতে চাই। তিনি বলেন, দিনদিন তরুণদের মধ্যে মাদক সেবনের আগ্রহ বাড়ছে। বিশেষ করে সিগারেট সেবনে আসক্ত হচ্ছে তরুণরা। বিষয়টি চিন্তা করতে হবে। মাদকাসক্তের কারণে সড়ক দুর্ঘটনা বাড়ছে। ৩০ ভাগ চালক মাদকাসক্ত। তিনি বলেন, ২০৪০ সালের মধ্যে বাংলাদেশ মাদকমুক্ত হবে। এ জন্য জনপ্রতিনিধিদের ভ‚মিকা গুরুত্বপূর্ণ।

সিলেট জেলার সাধারণ সম্পাদক প্রভাষক মিহির মোহন ও ভোরের কাগজের সিলেট ব্যুরো প্রধান ফারুক আহমদের সার্বিক পরিচালনায় ও শর্মিলা দেব পূরবী ও আয়শা মুন্নীর যৌথ সঞ্চালনায় মতবিনিময় সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, সিলেট প্রেসক্লাব সভাপতি ইকবাল সিদ্দিকী, মানস সিলেটের প্রধান উপদেষ্টা মুহিবুর রহমান কিরন, আমন্ত্রিত
অতিথির মধ্যে বক্তব্য রাখেন সুজন সিলেটের সভাপতি ফারুক মাহমুদ চৌধুরী, জেসিস সভাপতি এটিএম বদরুল ইসলাম,
সিলেট প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি ইকরামুল কবির, আহমেদ নুর, সিলেট গ্যাস ফিল্ডের ম্যানেজার অ্যাডমিন হেলাল উদ্দিন, বাকবিশিস সিলেট জেলা সভাপতি অধ্যাপক অজয় কুমার রায়, ইত্তেফাক সিলেট ব্যুরো প্রধান হুমায়ুন রশিদ চৌধুরী, সিলেট প্রেসক্লাবের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ সিরাজুল ইসলাম, দৈনিক বাংলার সিলেট ব্যুরো প্রধান দেবাশীষ দেবু, অধ্যাপক কাশমির রেজা, অধ্যাপক সাখাওয়াত হোসেন, প্রভাষক তপন চন্দ্র পাল, সিলেট ফটো জার্নালিস্ট
অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি শেখ আশরাফুল আলম নাসির।

অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন, মানস সিলেট জেলা শাখার সভাপতি হেলাল আহমদ, সাংগঠনিক সম্পাদক নজরুল ইসলাম।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন সাংবাদিক আহবাব মোস্তফা খান, খালেদ আহমদ, সজল ঘোষ, এএইএম ফিরুজ আলী, মিছবাহ
উদ্দিন রনি, রোটারিয়ান রফিকুল ইসলাম, বিপুল, মানস সিলেটের সাংগঠনিক সম্পাদক নজরুল ইসলাম, মো. লালা
মিয়া, সন্দীপন, শুভ চ্যানেলের ডা. মো. ফরিদ আহমদ, মো. আকদ্দুছ আলী, সুমন বিপ্লব, আজাদ আহমদ, মো. জসিম
উদ্দিন, রিসিকেশ রায় শংকর, খালেদ আহমদ, আনন্দ টিভি প্রতিনিধি টুনু তালুকদার, বাংলা টিভি আলমগীর হোসেন,
ভোরের কাগজ প্রতিনিধি নজরুল ইসলাম, বদরুল ইসলাম মহসিন, সুহেল আহমদ, সুহেল মিয়া।

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।